পার্টনারশিপ বিজনেস বিফলের কারন সমূহ

0
231

সাধারনত বিজনেস যে গঠনেরই হোক না কেন তার সফলতার মূলে থাকে সুপরিকল্পনা এবং ব্যাবসায়ীর দূরদর্শীতা, অদম্য সাহস এবং চেষ্টা। ঠিক একইরকম ভাবে যে কোন গঠনের ব্যাবসায়ের ব্যর্থতার পেছনেও একই কারনগুলো কাজ করে যেমন দূর্বল পরিকল্পনা, সমঝোতার কমতি, এবং ভুল সিদ্ধান্ত।

মুলত পার্টনারশিপ এর ক্ষেত্রে আমরা সামাজিক আন্তরিকতাকে প্রাধান্য দিয়েই শুরু করা হয় এবং এটা স্বাভাবিক যে মানুষ তার পরিচিত সম্পর্ককেই গুরুত্ব দিবে। কিন্তু এটা সবসময় উচিত নয়। কেননা, গন্ডির বাইরে গেলেই মানুষ নতুনত্বকে সৃষ্টির জন্য, নতুন নতুন সমাধানের জন্য উদগ্রীব হয়ে পড়ে।

পার্টনারশিপ বিজনেস বিফলের কিছু সাধারন কারনসমূহ হল:

১. হঠাত কৌশল পরিবর্তন:

যেকোন আকারের কোম্পানিগুলি আগের তুলনায় অনেক টেকসই অবস্থার জন্য তাদের কৌশলগত ফোকাস পুনর্মূল্যায়ন এবং স্থানান্তরিত করে, যখন কোনও অংশীদার আকস্মাৎ একটি নতুন কৌশলগত কাজে অংশ নেয় তখন অনেক পার্টনারদের আঘাত করে। ঠিক যেমন ছোট নৌকাগুলি দ্রুতগতিতে চলাচল করে, ছোট কোম্পানিগুলি বড় বড় সংস্থার তুলনায় তাদের কৌশল পরিবর্তন করতে পারে কারণ তারা বাজারে আরও দ্রুত প্রতিক্রিয়া জানাতে পারে। আপনি জিজ্ঞাসা করা প্রয়োজন, “এই কোম্পানী কে, এবং তারা এখন থেকে ছয় মাস হবে?”

২. মূল ব্যাক্তিদের কারো অব্যাহতি:

কৌশল হিসাবে পরিবর্তনযোগ্য হতে পারে, ব্যক্তিগত কর্মজীবন প্রায়ই আরো চমকপ্রদ গতি নেয়। আপনার মূল্যবান অংশীদারিত্ব রক্ষা করতে, একাধিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাথে সম্পর্ক স্থাপন করার চেষ্টা করুন।

৩. অগ্রাধিকারের অসামঞ্জস্য:

অনেকগুলি অংশীদারিত্বের উদাহরণ রয়েছে যা প্রমাণ করে যে পার্টনারদের অগ্রাধিকারের অসামঞ্জস্যের কারনে প্রায়শই ব্যাবসা বিফল হয়।

৪.ভুল বোঝাবুঝি:

দুইজন মানুষ যখন একসাথে থাকে এটা স্বাভাবিক যে কখনো না কখনো ভুল বোঝাবুঝি হবেই এবং পার্টনারশিপ বিফলের অন্যতম একটি কারন।

৫. অর্থের ভাগাভাগি:

ব্যবসার মূল উদ্দেশ্য হল অর্থ উপার্জন। বিষয়টা যখন লভ্যাংশ ভাগাভাগির, তখন যতসামান্য কারনেই দুইজন অংশীদারের মাঝে দূরত্বের সৃষ্টি হয়।

তিশা ফারহানা
উদ্যোক্তা, ক্র‍্যাফটিকস।

ইয়ুথ স্কুল ফর সোস্যাল এন্ট্রাপ্রেনার্স

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here